সরকারি হচ্ছে ৩২৫ স্কুল-কলেজ

 সারাদেশের ২৮৫টি কলেজ এবং ৪০টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় সরকারীকরণের জন্য চূড়ান্ত করেছে সরকার। এসব স্কুল-কলেজের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি সরকারের কাছে হস্তান্তরের নির্দেশ দিয়ে গত বৃহস্পতিবার আদেশ জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ।


২৮৫টি কলেজের তালিকায় রয়েছে ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়ার আলোচিত বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা মহাবিদ্যালয়।
এই কলেজটির আগে প্রতিষ্ঠিত ফুলবাড়ীয়া কলেজ সরকারি করার দাবি ছিল স্থানীয়দের, যেটা নিয়ে সংঘাতে এক শিক্ষকসহ দুইজন নিহত হন। তবে সরকারীকরণের তালিকায় এই কলেজটির নাম নেই।



প্রধানমন্ত্রীর মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত মোট পাঁচটি কলেজ সরকারিকরণের তালিকায় রয়েছে। সরকারীকরণের তালিকায় ঢাকার সাভার কলেজ, চট্টগ্রামের নিজামপুর কলেজ, হাটহাজারী কলেজ, রাউজান কলেজ, ফটিকছড়ি কলেজ, আনোয়ারা কলেজ ও রাঙ্গুনিয়া কলেজের নাম রয়েছে। যেসব উপজেলায় সরকারি কলেজ নেই, সেখানে একটি করে কলেজ সরকারি করছে সরকার। তিন পার্বত্য জেলার ১৪টি কলেজ সরকারি হচ্ছে এই দফায়।
নতুন করে সরকারি হওয়া কলেজের শিক্ষকরা অন্য কলেজে বদলি হতে পারবেন না বলে জানানো হয়েছে। আদেশে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিবের কাছে সরকারীকরণের জন্য তালিকা চূড়ান্ত হওয়া কলেজের রেজিস্ট্রিকৃত দানপত্র দলিল (ডিড অব গিফট) জরুরিভিত্তিতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক ছাড়াও এসব কলেজের অধ্যক্ষকে চিঠির অনুলিপি দেয়া হয়েছে। মাধ্যমিক বিদ্যালয় সরকারীকরণের তালিকা চূড়ান্তকরণের আদেশে এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মকর্তাদের দুটি উৎসব ভাতাসহ বেতন-ভাতা বাবদ কত প্রয়োজন, সেটা জানতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরকে বলা হয়েছে।
এ ছাড়া বিদ্যালয়গুলোর স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে সব ধরনের নিয়োগ কার্যক্রম বন্ধ রাখতেও মাউশিকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

মন্তব্যসমূহ