বিশ্বকাপ জিতে নিলো ক্যারিবীয় বীরেরা

www.voice-bangladesh.com
শেষ ওভারে দরকার ছিলো ১৯ রান। জয়ের সম্ভাবনায় আপনি কোন দলকে বেছে নিয়েছিলেন? ওয়েস্ট ইন্ডিজ নয় নিশ্চয়! তাহলে জীবনের সবচেয়ে বড় ভুলগুলোর একটিই হয়তো করে ফেলেছেন। শেষ ওভারের প্রথম বলে স্ট্রাইকে ছিলেন কার্লোস ব্রাথওয়াইট। বোলিংয়ে এসেছিলেন বেন স্টোকস। এরপর কী হলো? ক্যারিবীয় ক্রিকেটের রূপকথায় যোগ হলো নতুন অধ্যায়। টানা চারটি অবিশ্বাস্য চার মেরে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ জেতার স্বপ্নটা গুঁড়িয়ে ছাতু করে দিলেন ব্রাথওয়াইট! স্টোকস হয়তো সুদূরতম কল্পনায়ও ভাবেননি এইভাবে তার কয়েক দিনের ঘুম নষ্ট করে দিবেন টি-টোয়েন্টিতে এই ম্যাচের ১৩ রানের বেশি করতে না পারা ব্রাথওয়াইট। কলকাতার ফাইনালে ভারত ছিলো না বলে দর্শক হবে না; এমন একটা কথা শোনা যাচ্ছিলো। কিন্তু বিশুদ্ধ ক্রিকেটের দর্শকরা কি আর এমন দিনে বসে থাকতে পারেন? পারেন না বলেই ইডেন গার্ডেন্স ভরে গিয়েছিলো। তাদের আসাটা ভুল হয়নি। বরং জীবনের সেরা স্মৃতি নিয়েই ফিরলেন তারা। দেখলেন ক্যারিবীয় ক্রিকেটের পুনর্জাগরণ।  সেই অন্য কিছুর ফল দাঁড়ালো ১০ বলে ৩৪ রান! সঙ্গে চারটি অবিশ্বাস্য ছয়। এরপর সব কিছু ইতিহাস। যেখানে ৮৫ রান করা স্যামুয়েলস পেতে পারেন বড়জোর পার্শ্বনায়কের চরিত্র; কারণ মূল নায়ক যে অতি অবশ্যই অন্য একজন। তিনি ব্রাথওয়াইট। চার বলের মহারাজা ব্রাথওয়াইট। ক্যারিবীয় ক্রিকেটের নতুন বরপুত্র ব্রাথওয়াইট!

মন্তব্য

Unknown বলেছেন…
শেষ ওভারে দরকার ছিলো ১৯ রান।