মাশরাফি ও বিসিবির ৩টি জঘণ্য ভুলে হেরেছে বাংলাদেশ


ভুল নাকি মানুষের জীবনের অংশ। তবে পাকিস্তানের বিপক্ষে যে ৩টি জগণ্য ভুল হয়েছে তা কিছুতেই মেনে নেয়ার মত নয়। মাশরাফি ও বিসিবির ৩টি জঘণ্য ভুলে হেরেছে বাংলাদেশ। মাশরাফির ভুলটাও মারাত্মক। এমটিনিউজের গতকালের (বুধবার) খবরে বলা ৪ পেসারের থিউরি পাকিস্তানের বিপক্ষে দুর্বল। দেখা গেল ৪ স্পিনারই ছিল ছিল একাদশে। কিন্তু মাশরাফি ১০ ওভারই চালান পেস বলে। পাকিস্তান স্পিন বলকে ঠিকই সমীহ করেছে।মাশরাফির বড় ভুল হলো রিয়াদকে বল না দেয়া।পেস বোলিং কমিয়ে রিয়াদকে বল দেয়া যেতে পারত। সানি ও সাব্বির খুবই ভালো বল করেছেন।সাব্বিরকে আরো বল দেয়া উচিৎ ছিল। ৫৫ রানের হারের বিপরীতে অন্তত ৬০ রান এই প্লানের মাধ্যমে কমিয়ে আনা যেত। অন্যদিকে বারবার ব্যর্থ হওয়া দুই ক্রিকেটার সুযোগ পায় একাদশে।একজন হলেন, সৌম্য সরকার অন্যজন হলেন মিঠুন। এরা দলকে বারবার লজ্জায় ডুবান। এই ভুল মূলতঃ বিসিবির। ভালো একাদশ নির্বাচনের কাজটা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকেই করতে হবে।এর আগে একটি ম্যাচে সৌম্য ও মিঠুনকে বাংলাদেশের ওপেনার হিসাবে মাঠে নামানো হয়। দুই জনেই শূণ্য রানে বিদায় নেয়। বারবার পরীক্ষার জন্য একাদশে নেয়া হচ্ছে তাদের।
আর এর জন্য কষ্ট পেতে হচ্ছে কোটি মানুষকে। ধারনা করা যায়, মাশরাফি ও বিসিবি সঠিক কাজটা করতে পারলে পাকিস্তানের বিপক্ষে জয় পেত বাংলাদেশ।সোহাগ গাজী, আবদুর রাজ্জাকের মত বোলার দলে নেই। স্পিনার হিসাবে পাকিস্তানের বিপক্ষে তারা মাঠে নামার সুযোগ পেলে হয়তো খুবই ভালো করত।

মন্তব্যসমূহ