তাসকিন-সানির বোলিং অ্যাকশনের ফল নিয়ে অস্বস্তিতে বিসিবি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে ডাচদের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনের কাছে আরাফাত সানি এবং তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহের কথা জানায় আইসিসি। এরপর গত ১২ মার্চ বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দেন আরাফাত সানি। ও ১৫ মার্চ চেন্নাইয়ে পরীক্ষা দেন তাসকিন।  ১৬ মার্চ আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষার ফল প্রকাশের গুঞ্জণ ছিল । কিন্তু দুই দিন পার হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত কোনও ফল  পাওয়া যায় নি। আর তাসকিনের ফল ঠিক কবে  প্রকাশ হবে তাও নিশ্চিত করে জানায় নি  আইসিসি।এমনকি এ বিষয়ে কিছুই জানে না  খোদ বিসিবি।
আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, কোনো বোলারের বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষার ফল ১৪ দিনের মধ্যে প্রকাশের নিয়ম। কিন্তু কোনো টুর্নামেন্ট চলাকালীন সময়ে দ্রুততম সময়ের মধ্যে এই রিপোর্ট দেয়ার নিয়ম রয়েছে। এদিকে, শনিবার এ দুই বোলারের রিপোর্ট প্রকাশ হতে পারে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। কিন্তু বিষয়টি নিশ্চিত নয় বিসিবি। তবে বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষার ফল নিয়ে বেশ অস্বস্তিতে রয়েছে বিসিবি কর্মকর্তারা। কারণ ২১ মার্চ ব্যাঙ্গালুরুতে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ফলে আজ (শনিবার) অথবা কাল (রোববার) যদি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়, তাহলে তার নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে দলের মধ্যে। আর এ ক্ষেত্রে দল সাজানো নিয়ে বেশ বিপাকে পড়বে টিম ম্যানেজমেন্ট।

মন্তব্যসমূহ

vob বলেছেন…
একজন লেখক বা প্রতিবেদকের একটি লেখা বা প্রতিবেদন প্রথম পৃষ্ঠায় থাকা অবস্থায় তিনি আরেকটি লেখা বা প্রতিবেদন সাবমিট করতে পারবেন না। অর্থাৎ ১ম পৃষ্ঠায় ১০ জন লেখকের ১০ টি ভিন্ন ও ভিন্ন ধর্মী লেখা বা প্রতিবেদন থাকবে। বর্তমান অবস্থায় (ভয়েস অব বাংলাদেশ) সম্পূর্ণরূপে চালু না হওয়া পর্যন্ত একজন লেখক বা প্রতিবেদককে ১ম পাতায় ১ টি লেখা বা পোষ্ট করার পর কমপক্ষে ৭-১০ দিন সময় পর পোষ্ট করার জন্য পরামর্শ দেওয়া যাচ্ছে। বৈচিত্রতার জন্য শুধু মাত্র ১টি নির্দিষ্ট বিষয় নিয়ে না লিখে বিভিন্ন টপিক নিয়ে লিখুন
Ashraful Alam বলেছেন…
দুঃখিত এই বিষয়টি আমার অবগত ছিলনা বিষয় টি আমকে অবগত করার জন্য ধন্যবাদ